১০ চেয়ারম্যান প্রার্থীর দিকেই ভোটারের চোখ

44

নিজস্ব প্রতিবেদক

তৃতীয় পর্যায়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বোয়ালখালী, আনোয়ারা, পটিয়া ও চন্দনাইশে ভোটগ্রহণ আজ। চার উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অর্ধশত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চন্দনাইশে বিনাভোটে নির্বাচিত হওয়ায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হবে না। নির্বাচনে চার উপজেলার দশজন চেয়ারম্যান প্রার্থীকে ঘিরেই ভোটারদের আগ্রহ বেশি। পাশাপাশি উদ্বেগ-উৎকন্ঠাও আছে। ৯ লক্ষ ৬৯ হাজার ৬০১ জন ভোটার ৩৫৬ ভোটকেন্দ্রে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ভোটগ্রহণে থাকবেন ১১ হাজার ১৭১ জন প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং কর্মকর্তা। আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। স্ট্রাইকিং ফোর্স ও মোবাইল টিমও পর্যবেক্ষণে থাকবে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রতিটি ইউনিয়নে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ছাড়াও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্ব পালন করবেন।
এদিকে চার উপজেলায় অনেকে প্রতীক বরাদ্দ পেয়েও শেষ মূহূর্তে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। নেতার সিদ্ধান্ত ও ব্যক্তিগত কারণে অনেকেই নির্বাচনী মাঠ ছেড়েছেন। চন্দনাইশে দুইজন, পটিয়ায় দুইজন, আনোয়ারায় দুইজন ও বোয়ালখালীতে চারজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে জমজমাট ভোটযুদ্ধ হবে। প্রার্থীদের এমন লড়াইয়ের আভাসে সংঘাত শঙ্কায় আছেন ভোটাররা। তবে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কঠোর অবস্থানে আছেন ইসি, প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ইউনুচ আলী বলেন, ‘ভোটগ্রহণের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। রাত পোহালেই ভোটগ্রহণ শুরু হবে। সকল ভোটকেন্দ্রে যাতে ভোটাররা নির্বিঘেœ ভোট দিতে পারে সে ব্যবস্থাই করা হয়েছে। যেখানেই শঙ্কা রয়েছে সেখানে অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন থাকবে। ইতোমধ্যে ভোটকেন্দ্রে সকল নির্বাচনী সরঞ্জাম পৌঁছে গেছে।’
ইসি সূত্র জানায়, চন্দনাইশে সাতজন, পটিয়ায় ১৬ জন, বোয়ালখালীতে ১৫ জন ও আনোয়ারায় ১২ জন প্রার্থী প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে প্রচারণা করেন। তবে প্রচারণার মাঝপথে কয়েকজন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। চারটি উপজেলাতেই ভোটযুদ্ধ জমে উঠেছে। নির্বাচনের প্রচারণা মাঠ ছাড়িয়ে প্রেস্টিজ ইস্যুতে পরিণত হয়েছে।
চন্দনাইশে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু আহমেদ চৌধুরী জুনুকে (ঘোড়া), উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম চৌধুরী (দোয়াত-কলম), ব্যবসায়ী জসীম উদ্দীন আহমদ (মোটরসাইকেল), জোয়ারা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আহম্মদ হোসেন ফকির (আনারস) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ভাইস- চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস-চেয়ারম্যান মৌলানা মো. সোলাইমান ফারুকী (বৈদ্যুতিক বাল্ব), অধ্যাপক মোহাম্মদ একরামুল হোসেন (তালা) ও রূপম দেব (উড়োজাহাজ) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান খালেদা আক্তার চৌধুরী একক প্রার্থী হিসেবে বিনাভোটে জয়ী হয়েছেন।
পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদ (আনারস), মহানগর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার (দোয়াত-কলম), ভাইস চেয়ারম্যান পদে ঝুলন দত্ত (চশমা), আবু ছালেহ মুহাম্মদ শাহরিয়ার শাহরু (উড়োজাহাজ), মোহাম্মদ বেলাল ( বৈদ্যুতিক বাল্ব), সাইফুল হাসান টিটু (মাইক), ডা. এমদাদুল হাসান (বই), মোজাম্মেল হোসেন রাজধন (টিয়া পাখি), আশীষ তালুকদার (তালা), নাজিম উদ্দিন (টিউবওয়েল। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মাজেদা বেগম শিরু (কলস), সাজেদা বেগম (প্রজাপতি), কানিজ ফাতেমা শাওন (পদ্মফুল), আফরোজা বেগম জলি (হাঁস), নুর আয়েশা বেগম (ফুটবল), সুমি দে (বৈদ্যুতিক পাখা)।
বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী (মোটরসাইকেল), সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজা (দোয়াত-কলম), বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম সেলিম (কাপ-পিরিচ), বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম নুরুল ইসলাম (টেলিফোন), বোয়ালখালী পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ শফিউল আলম শফি (ঘোড়া), ব্যবসায়ী মোহাম্মদ জাহেদুল হক (হেলিকপ্টার) ও মুহাম্মদ শফিক (আনারস) প্রতীকে নির্বাচন করছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোহাম্মদ মীর নওশাদ (টিউবওয়েল) শফিকুল আলম (টাইপ রাইটার), মোহাম্মদ সেলিম উদ্দীন (তালা), মোহাম্মদ রিদওয়ানুল হক টিপু (চশমা ) ও সজল কান্তি চৌধুরী (উড়োজাহাজ) প্রতীকে নির্বাচন করছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান বোয়ালখালী উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা বেগম (প্রজাপতি), মর্জিনা বেগম (কলসি) ও মোছাম্মৎ উম্মে সালমা (ফুটবল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
আনোয়ারায় বর্তমান চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী (দোয়াত কলম), অধ্যাপক এম. এ মান্নান চৌধুরী (মোটরসাইকেল) ও কাজী মোজাম্মেল হক (আনারস) প্রতীকে লড়ছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সুগ্রীব মজুমদার দোলন (তালা), মোহাম্মদ আবু জাফর (টিয়া পাখি), সালাউদ্দিন সারো (টিউবওয়েল), মো. আবদুল মান্নান মান্না (চশমা), প্রদীপ দত্ত (মাইক) ও সন্তোষ কুমার দে (বই) লড়ছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম (ফুটবল), অ্যাডভোকেট চুমকি চৌধুরী (হাঁস) ও পারভীন হাবিব (কলসি) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।