সংসদের পর উপজেলায়ও হারলেন জাফর আলম

15

চকরিয়া প্রতিনিধি

টান টান উত্তেজনা ও সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কড়া নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে গতকাল মঙ্গলবার শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ইভিএম পদ্ধতিতে এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সংসদ সদস্য জাফর আলমকে পরাজিত করে টানা দ্বিতীয় বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ফজলুল করিম সাঈদী।
নির্বাচন কমিশনসূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১১৪টি ভোট কেন্দ্রে দোয়াত কলম প্রতীকের বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল করিম সাঈদী পেয়েছেন ৫৬ হাজার ১২২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী সাবেক সাংসদ জাফর আলম পেয়েছেন ৫২ হাজার ২৫২ ভোট। তাদের মধ্যে ভোটের ব্যবধান ৩ হাজার ৮৭০ ভোট।
অন্যদিকে নারী ভাইস-চেয়ারম্যান পদে হাঁস প্রতীকের প্রার্থী জাহানারা পারভীন ও পুরুষ ভাইস-চেয়ারম্যান পদে তালা প্রতীকের প্রার্থী বেলাল উদ্দিন শান্ত নির্বাচিত হন।গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ ইরফান উদ্দিন ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন।
গত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীকের কাছে পরাজিত হয়েছিলেন একাদশ সংসদের সদস্য জাফর আলম। এ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।
মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে কোনো কোনো কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়তে দেখা গেছে।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। নির্বাচনকালীন সময়ে একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ১৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পাশাপাশি র‌্যাবের একাধিক আভিযানিক টিম, ৬ প্লাটুন বিজিবি, ৫৫০ পুলিশ সদস্য এবং আনসার ভিডিপির ১৪৮২ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করে। এছাড়া ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের কাছ থেকে ভোট নেয়ার জন্য ১১৪ জন প্রিজাইডিং, ৭৬৬ জন সহকারি প্রিজাইডিং ও ১৫৩২ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করেন।