রামকৃষ্ণ পরমহংসদেবের জন্মতিথি অনুষ্ঠান

38

যুগে যুগে মহাপুরুষদের আগমণ ঘটে মানুষকে সৎ পথে পরিচালিত করার জন্য। তেমনি যুগাবতার শ্রী রামকৃষ্ণ পরমহংসদেবের আবির্ভাব ঘটেছিল ধর্মীয় মূল্যবোধ মানুষের মাঝে চির জাগরুক রাখার জন্য। গত ১৬ মার্চ গোসাইলডাঙ্গায় তৃতীয় দিনের ধর্মীয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম রামকৃষ্ণ মিশন সেবাশ্রমের অধ্যক্ষ স্বামী শক্তিনাথানন্দজী মহারাজ এসব কথা বলেন। শ্রী রামকৃষ্ণ পরমহংসদেবের ১৮৪তম জন্মতিথি উদ্যাপন উপলক্ষ্যে শ্রী শ্মশান কালী বাড়ী উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পরিষদের চেয়ারম্যান মানিক চৌধুরী।
সুমন দাশ গুপ্তের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন গোসাইলডাঙ্গা ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, সিএনএফ এসোসিয়েশনের সভাপতি এ.কে.এম আকতার হোসেন, পরিষদের উপদেষ্টা শ্রী পিন্টু দাশগুপ্ত, গোসাইলডাঙ্গা ওয়ার্ড আ’লীগের আহবায়ক মো. ইসকান্দর মিয়া, মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের কার্যনির্বাহী সদস্য ডা. মিলন শর্মা, অদ্বৈত অচ্যতু মিশন তুলসীধামের সাধারণ সম্পাদক হিরন্ময় ধর, নারী নেত্রী জিন্নাত আরা লিপি, পরিষদের কো-চেয়ারম্যান অশোক দাশগুপ্ত, মিহির দাশ (রামু), গোসাইলডাঙ্গা শশ্মান কালী বাড়ি ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক আশীষ রঞ্জন চৌধুরী, পরিষদের উপদেষ্টা অনিল কান্তি চৌধুরী, দিলীপ কুমার সেন,সাধন রঞ্জন কারণ, অরুণ রায়, টিসু মল্লিক, পরিষদের কার্যকরী সভাপতি পিন্টু সাহা, সিনিয়র সহ-সভাপতি লিটন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অলক চৌধুরী প্রমুখ। ৫ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান ১৭ মার্চ মহানামযজ্ঞের পূর্ণাহুতির মাধ্যমে সমাপ্তি ঘটবে। বিজ্ঞপ্তি