মামলার কার্যক্রম ত্বরান্বিত করার তাগিদ খালেদার

50

নিজের বিরুদ্ধে চলমান মামলাগুলোর কার্যক্রম আরও ত্বরান্বিত করার উদ্যোগ নিতে বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের তাগিদ দিয়েছেন দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। গতকাল রবিবার দুপুরে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ শেখ হাফিজুর রহমানের আদালতে উপস্থিত জ্যেষ্ঠ কয়েকজন নেতার উদ্দেশ্যে এ আহ্বান জানান তিনি।
এদিন নাইকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানিতে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত আগামী ২১ জানুয়ারি পূণরায় দিন ধার্য করেছেন।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কারাদন্ড পেয়ে গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে পুরনো এই কেন্দ্রীয় কারাগারেই আছেন খালেদা জিয়া।
বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা খুব ভালো নয় বলে জানিয়েছেন বিএনপির নেতারা। খবর বাংলাট্রিবিউনের
বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পুরান ঢাকার কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। মির্জা ফখরুল একান্তে বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে কথাও বলেন। স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য জানান, শুনানির পর বেগম জিয়া নেতাদের তাগিদ দিয়েছেন তার বিরুদ্ধে চলমান মামলাগুলোর বিচার কার্যক্রম আরও গুছিয়ে আনতে এবং দ্রুততার সঙ্গে আইনি কার্যক্রম শেষ করতে।
স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার বলেন, ‘ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) সঙ্গে ছোট করে কথা বলার সুযোগ হয়েছে। কোনও রাজনৈতিক কথাবার্তা হয়নি। তার শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। তিনি আমাদের বলেছেন, মামলাগুলোর বিষয়ে যেন দ্রুততার সঙ্গে উদ্যোগ গ্রহণ করি এবং শেষ করে আনি’।
স্থায়ী কমিটির সূত্র জানায়, আগামী এক-দু’দিনের মধ্যেই বিএনপির আইনজীবীরা বৈঠকে বসে চেয়ারপারসনের মামলার বর্তমান অবস্থা, আগামী দিনের করণীয় নির্ধারণ করবেন। এতে জ্যেষ্ঠ আইনজীবীদের সঙ্গে তরুণ আইনজীবীরাও অংশ নেবেন।
আদালতে রবিবার খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, ‘ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) সঙ্গে আজকে আমার কথা বলার খুব একটা সুযোগ হয়নি। কারণ, হাইকোর্টে আরও একটি মামলা ছিল, প্রায় সাড়ে তিনশ’ নেতা-কর্মীর মামলা’।
খালেদা জিয়া মামলাগুলো নিষ্পত্তি করতে তাগিদ দিয়েছেন- এটা কি আইনজীবীদের সমন্বয়হীনতার বহিঃপ্রকাশ, এমন প্রশ্নের জবাবে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘সমন্বয়হীনতা একেবারেই নয়, ম্যাডাম মনে করেন যেন মামলাগুলো আরও দ্রুত নিষ্পত্তির দিকে যায়। আমাদের মধ্যে সমন্বয় আছে। এই তো আমার বিরুদ্ধেও একটি মামলা আছে, আমার কখনও মনে হয় আমার আইনজীবীরা আরও একটু সমন্বয় করলে বোধ হয় ভালো। ফলে, ম্যাডাম শুধু নয়, ক্লায়েন্ট মাত্রই এ বিষয়টা গুরুত্ব দেন’।
এর আগেও খালেদা জিয়া তার মামলাগুলো নিষ্পত্তি করতে তাগিদ দিয়েছেন বলে জানান ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।
প্রসঙ্গত, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মোট ৩৭ টি মামলা রয়েছে।