বাবার মৃতদেহ ঘরে রেখে পরীক্ষা দেয়া মেমেসিং পাস করেছে

7

কাপ্তাই প্রতিনিধি

জন্মদাতা বাবার মরদেহ ঘরে রেখে অবর্ণনীয় দুঃখ নিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া সেই মেমেসিং মারমা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। সে কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন গত ২৭ ফেব্রæয়ারি মেমেসিং এর বাবা উপেচিং মারমার আকস্মিক মৃত্যু হয়। এই ঘটনাটি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর কাপ্তাইবাসী ও দেশের মানুষের হৃদয়কে নাড়া দিয়েছিল। গত রবিবার (১২ মে) এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর মেমেসিং মারমা জিপিএ ৩.০৬ পেয়ে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় বলে জানা গেছে। সে কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা ইউনিয়নের কুকিমারা এলাকার বাসিন্দা। বিষয়টি নিশ্চিত করে কাপ্তাইয়ের ওয়াগ্গা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সুবিমল তঞ্চঙ্গ্যা জানান, মেমেসিং মারমা যেই পরিস্থিতিতে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল সেটি ছিল অনেক কষ্টের। বাবার মরদেহ ঘরে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়াটা ছিল অত্যন্ত হৃদয় বিদারক। এমন কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে পরীক্ষা দিয়ে সে অনেক ভালো ফলাফল করেছে। হয়তো এমন একটি দুর্ঘটনা না ঘটলে সে আরও ভালো ফলাফল করতে পারতো।
ওয়াগ্গা ইউপির চেয়ারম্যান চিরঞ্জিত তঞ্চঙ্গ্যা জানান, মেমেসিং মারমার এই ফলাফলে আমরাও অনেক আনন্দিত। সে ভবিষ্যতে তার লেখাপড়া চালিয়ে যাবে এবং আরও ভালো ফলাফল করবে বলে আমরা আশাবাদী। ওয়াগ্গা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যেকোনো সহযোগিতায় আমরা তার পাশে থাকবো।