বান্দরবানে মাঠ দিবসে আলোচনা সভা

24

বান্দরবানে আমন ধান কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে সদর উপজেলার রেইচা ধুংখিপাড়া এলাকায় মাঠে উপস্থিত হয়ে ব্রি-৭১ ও বিনা-১৭ জাতের ধান কেটে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক ড. এ কে এম নাজমুল হক। পরে একই স্থানে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় মাঠ দিবস। এতে গোয়ালিয়া খোলা ও ধুংকি পাড়ার শতাধিক কৃষক অংশ নেন এবং কৃষি বিষয়ে নানা সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন তারা। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মো. ওমর ফারুক, স্থানীয় মেম্বার থোয়াইচিংউ মার্মাসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা বলেন,বর্তমান সরকার কৃষকদের স্বার্থে সবধরনের সহযোগিতা দিচ্ছেন।কৃষি বিভাগের প্রযুক্তিগত সহযোগিতার কারণে এ বছর রোগ বালাই তেমন ছিল না।ফলে ধানের আবাদ হয়েছে ভালো।তিনি আরোও বলেন,আমন ধানের পুরনো জাতগুলোর ফলন ও জীবনকাল বেশি হওয়ায় কৃষকের উৎপাদন খরচ বেশি হতো। উৎপাদন খরচ কমানো স্বল্প জীবনকাল ও খরা সহিষ্ণু জাত সম্প্রসারণের জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কাজ করে যাচ্ছে। ব্রি ধান৭১ ও বিনা ধান ১৭, বিনা ধান ২০ এর আবাদ বৃদ্ধি করা হচ্ছে। কৃষক যেন কৃষি অফিস থেকে প্রাপ্ত প্রদর্শনী থেকে পরবর্তীতে বীজ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও পার্শ্ববর্তী কৃষকদের মধ্যে বিনিময় ও বিতরণ করার জন্য সভাপতি কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করেন।