বাঁশখালীতে বাসের ধাক্কায় গাছ পড়লো বিদ্যুৎ লাইনে

36

বাঁশখালীতে নিয়ন্ত্রণ হারানো সুপার সার্ভিসের যাত্রীবাহী একটি বাসের রাস্তার পাশে গাছের সাথে ধাক্কা লাগে। এতে বাসটি বড়ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলেও গাছের খন্ডিত অংশ ভেঙে ৩৩ কেভি বিদ্যুৎ লাইনের উপর পড়েছে। গতকাল বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে প্রধান সড়কের পৌরসভা মিয়ার বাজারে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।
যাত্রীরা জানান, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সুপার সার্ভিসের বাসটি পাঁচটি সুপারি গাছ দুমড়েমুচড়ে একটি কড়ই গাছকে সজোরে ধাক্কা দিয়ে আটকে যায়। প্রচন্ড ধাক্কায় কড়ই গাছটি ভেঙে সড়কের পাশ ঘেঁষে যাওয়া ৩৩ কেভি বৈদ্যুতিক লাইনের উপর গিয়ে পড়ে। এতে বাসটির সামনের অংশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন গাড়িতে থাকা ৪০জন যাত্রী। যাত্রীরা গাড়ির সামনের অংশ দিয়েই বের হয়েছেন। তবে আহত হয়ে শিমুল দাশ (৪৫) ও তাপস দাশ (৪০) নামে দুই সহোদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন।
গাড়িতে থাকা যাত্রী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুমিত্র দীপ বলেন, বেপরোয়া গতিতে চালক ওভারটেক করার চেষ্টা করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি রাস্তার পাশে গাছের সাথে জোরে ধাক্কা খায়। প্রচন্ড ঝাঁকুনিতে যাত্রীরা সামনের দিকে আছড়ে পড়লেও বড়ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে। পরে যাত্রীরা গাড়ি পরিবর্তন করে যে যার মতো গন্তব্যে পৌঁছেছে। বাঁশখালীর গাড়ি চালকদের সড়কে এমন অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ হওয়া উচিত।
বাঁশখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) নাঈমুল হাসান বলেন, বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে বাসের ধাক্কায় ৩৩ কেভি বৈদুতিক সংযোগের ভেঙে পড়া গাছটি কেটে ফেলা হয়েছে। অল্পের জন্য যাত্রীরা রক্ষা পেয়েছেন।
বাঁশখালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কুদ্দুস বলেন, গাড়িটির ব্রেকফেল হয়েছিল। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা লাগে। দুর্ঘটনায় বাসের সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।