ফটিকছড়িতে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

51

ফটিকছড়ি উপজেলায় এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রবিবার বিকালে উপজেলার কাঞ্চনগর ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের নাম মুছাম্মৎ শিমু আকতার (১৯)। তার স্বামী মুহাম্মদ রমজান আলী। গত বছরের অক্টোবরে তাদের বিয়ে হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিমু আকতার গতকাল বিকালে তিনটার দিকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে নিজ ঘরে ছটপট করতে থাকেন। এসময় পরিবারের লোকজন দেখে তাকে দ্রæত ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করেন। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নিহতের নানা মুহাম্মদ আবু তাহের বলেন, ‘আমার নাতনিকে হত্যা করা হয়েছে নাকি সে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে, তা বুঝা যাচ্ছে না।
তবে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সাথে কিছুদিন থেকে তার বনিবনা হচ্ছিল না। তারপরও পুলিশ তদন্ত করছেন। তদন্তে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।
ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বাবুল আকতার বলেন, ‘হাসপাতালের ডাক্তারদের ভাষ্য অনুযায়ী গৃহবধূ ফাঁসিতে ঝুলতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অবস্থাদৃষ্টেও এরকমই মনে হচ্ছে। গলায় ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে। আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠিয়েছি। তদন্ত প্রতিবেদনের পর জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।