দীঘিনালায় কবাখালী ইউপি শাখার আ.লীগের কাউন্সিল

29

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় ৩নং কবাখালী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার কবাখালী বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে, শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন, খাগড়াছড়ি থেকে নির্বাচিত সাংসদ, শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে আলোচনা সভায় ৩নং কবাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ কাশেম, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. মাহবুব আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক রৌশন আলী ভ‚ইয়া, ১নং মেরুং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রহমান কবির রতন, নুরুল ইসলাম বাচা, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নওশাদ পাটোয়ারি, কবাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।
সম্মেলনে শেষে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়। এতে ২৬৯ ভোটের মধ্যে সভাপতি পদে মো. মফিজুর রহমান আনারস প্রতীকে ১৩২ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী মো. জয়নাল আবেদীন ছাতা প্রতীকে ৬৮ ভোট এবং মো. জামাল হোসেন চেয়ার প্রতীকে ৬৫ ভোট পেয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে মো. আবদুল হান্নান ফুটবল প্রতীকে ৯৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী মোঃ সোহাগ মিলন বকুল মোবাইল প্রতীকে ৬৮ ভোট, আবদুল আলিম টিউবওয়েল প্রতীকে ৬৫ ভোট এবং শাহজাহান মাছ প্রতীকে ৩৪ ভোট পেয়েছেন।
সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আল আমিন বাইসাইকেল প্রতীকে ৬৫ ভোট পেয়ে প্রথম সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। দ্বিতীয় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মহর আলী প্রজাপতি প্রতীকে ৫৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অন্যদিকে রুহুল আমিন গোলাপফুল প্রতীকে ৫২ ভোট,বিল্লাল হোসেন আম প্রতীকে ৪৮ ভোট, এবং মোস্তফা মজুমদার আপেল প্রতীকে ১৪ ভোট পেয়েছেন।