জন্মাষ্টমী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির স্মরণসভা

77

শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক দানবীর মৃদুল কান্তি দে’র ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজল কান্তি দত্তের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা জন্মাষ্টমী উদ্যাপন পরিষদ-বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে গত ১৬ জুলাই সন্ধায় নগরীর রহমতগঞ্জস্থ পরিষদের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
পরিষদের কার্যকরী সভাপতি ডা. মনোতোষ ধরের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-সম্পাদক প্রকৌশলী আশুতোষ দাশের সঞ্চালনয় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সুজিত কুমার বিশ্বাস (মন্টু)। বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিষদের কেন্দ্রীয় সাবেক সভাপতি ও রাউজানের পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত, সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. চন্দন তালুকদার, অ্যাড. তপন কান্তি দাশ। প্রধান বক্তা ছিলেন পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে। বক্তব্য রাখেন পরিষদের সহ-সভাপতি অলক দাশ, চন্দন দাশ, পরেশ চন্দ্র চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক লায়ন আশীষ কুমার ভট্টাচার্য্য, লায়ন তপন কান্তি দাশ, সাধন চৌধুরী, লায়ন রবি শংকর আচার্য্য, অর্থ-সম্পাদক রতন আচার্য্য, দক্ষিণ জেলার সভাপতি বাবুল ঘোষ বাবুন, চট্টগ্রাম মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক রতœাকর দাশ টুনু, দক্ষিণ জেলার সাধারন সম্পাদক ঝুন্টু চৌধুরী, উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক গৌতম পালিত (টিকলু), কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, পরিষদ কর্মকর্তা পান্না পাল, সুভাষ চন্দ্র দাশ, কবরী রক্ষিত, লিটন কান্তি দত্ত, অ্যাড. টিপু শীল জয়দেব, শিপ্রা চৌধুরী, নিখিল ঘোষ, প্রকৌশলী সুভাষ গুহ, ইঞ্জিনিয়ার সনজিত বৈদ্য, রুমকী সেনগুপ্ত, উষা আচার্য্য, শিবাশীষ সেন, মীনা চৌধুরী, সনজয়ীতা দত্ত পিংকী, অ্যাড. সজিব কুমার বিশ্বাস, দেবাশীষ ধর, পুলক চৌধুরী, অ্যাড. কে.এন চৌধুরী, লিপটন দেবনাথ লিপু, শুভ বিশ্বাস, প্রসেনজিত সরকার প্রমুখ। স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, গুণীজনরা সমাজে তাদের কর্মে বেঁচে থাকেন। সমাজ তাদের আলোয় আলোকিত হয়। সমাজ বিনির্মাণে গুণীজনরা হলেন বাতিঘর। সে রকম এক মহানুভব ব্যক্তি ছিলেন দানবীর মৃদুল কান্তি দে ও সংগঠক কাজল কান্তি দত্ত। তারা ছিলেন একাধারে সমাজসেবক ও সংগঠক। তাঁদের মতো মানুষগুলোর মৃত্যু নেই। বিজ্ঞপ্তি