ছাত্রলীগকে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজদের কারখানা হতে দেয়া যাবে না

43

সাংসদ দীপংকর তালুকদার বলেছেন, জাতিকে একটা ভালো জায়গায় পৌঁছে দিতে হলে ছাত্রলীগকে দুর্বলতা, ত্রুটি বিচ্যুতি কাটিয়ে যোগ্য নেতৃত্ব ও আদর্শ সংগঠন হিসেবে তৈরি করতে হবে। তিনি বলেন, ছাত্রলীগকে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজদের কারখানা হতে দেয়া যাবে না। এজন্য নব নির্বাচিত কমিটিকে সজাগ থাকতে হবে। মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় কাউখালী উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কাউখালী উপজেলা শাখা কর্তৃক আয়োজিত বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
কাউখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতুমং মারমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের উদ্বোধন করেন, রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, অংচাপ্রু মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য অংসুইপ্রু চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এরশাদ সরকার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সামসু দোহা চৌধুরী, সাবেক চেয়ারম্যান এস.এম. চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ক্যজাই মারমা, যুগ্ম সম্পাদক মো. বেলাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ক্যসিমং মারমা, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজিদ দত্ত।
দীপংকর বলেন, ছাত্র রাজনীতি থেকে ফাউন্ডেশন তৈরি করে আগামী দিনের স্থপতি হিসেবে গড়ে উঠতে হলে ছাত্রলীগকে আদর্শ রাজনীতির ক্ষেত্র তৈরি করতে হবে। শিক্ষা, নৈতিকতা এবং আদর্শ সংগঠক হতে না পারলে লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব হবেনা। তিনি বলেন, ছাত্রলীগ যদি সন্ত্রাসী, মানুষের উপর অত্যাচার, চাঁদাবাজী এবং জমি জমা দখলের মতো অসামাজিক কাজে জড়িত থাকে তাহলে জননেত্রী শেখ হাসিনার দেয়া অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব হবে না।
সম্মেলন শেষে উপজেলা ছাত্রলীগের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি পদে থুইশিপ্রু মারমা, সাধারণ সম্পাদক পদে মো. শাহীন আলম অভি ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মধুমঙ্গল চাকমাকে নির্বাচিত হন।