একুশে পদকপ্রাপ্ত মমতার প্রধান নির্বাহী রফিক আহামদের নাগরিক সংবর্ধনা

3

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক রাষ্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক-২০২৪ প্রাপ্তিতে মমতা’র প্রধান নির্বাহী রফিক আহামদকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান করেছে চট্টগ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ও সুধীজনেরা। গত ২৫ মে নগরীর লালখান বাজারস্থ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে বিকেল ৫টায় এ নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত। নাগরিক সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন দৈনিক আজাদীর সম্পাদক একুশে পদকপ্রাপ্ত ব্যক্তিত্ব এম এ মালেক। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নাগরিক সংবর্ধনা পরিষদের আহŸায়ক ও ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির সাবেক উপাচার্য প্রফেসর মু. সিকান্দার খান। এছাড়াও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, বিভাগীয় সমাজসেবা অধিদফরের পরিচালক কাজী নাজিমুল ইসলাম, এমআরএ-এর নির্বাহী পরিচালক মুহাম্মদ মাজেদুল হক, বিসিবির পরিচালক মঞ্জুর আলম মঞ্জু, চট্টগ্রাম লায়ন্স ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান লায়ন নাসির উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক সাংসদ সাবিহা নাহার, আশফাক আহমেদ, মমতার উপ-প্রধান নির্বাহী মো. ফারুক। পরিবারের সদস্যদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন রফিক আহামদ এর পুত্র তৌহিদ আহমেদ। বক্তব্য রাখেন সংবর্ধনা পরিষদের সদস্য সচিব ও চট্টগ্রাম মা ও শিশু জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট সৈয়দ মোর্শেদ হোসেনসহ চট্টগ্রামের উন্নয়ন সংস্থাসমূহের নির্বাহী প্রধানগণ। অনুষ্ঠানটি বিকেল ৫টায় শুরু হয়ে রাত ৯টায় নৈশভোজ এর মাধ্যমে সমাপ্তি হয়।
এতে বক্তারা বলেন- রফিক আহামদ সমাজের মানুষের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করেছেন গত চল্লিশ বছরেরও বেশি সময় ধরে। মানবকল্যাণে তিনি একজন পথিকৃত ও সমাজে নিবেদিত হয়ে কাজ করা মানুষের জন্য একজন আদর্শ ব্যক্তিত্ব। রাষ্ট্রীয় নীতি নির্ধারকগণ সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য কারণ, একজন সঠিক মানুষকে যথাযথ মূল্যায়ন করার জন্য। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র বলেন, রফিক আহামদ চট্টগ্রামের একজন বরেণ্য সমাজসেবক ও বীর চট্টলার কৃতী সন্তান। তিনি চার দশকেরও বেশি সময় ধরে সমাজের মানুষের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করেছেন। রাষ্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক তার একটি স্বীকৃতি। সমাজসেবার ক্ষেত্রে তিনি আমাদের চট্টগ্রাম ও দেশবাসীর জন্য একজন কিংবদন্তী। বিজ্ঞপ্তি