ইডিইউর শিক্ষার্থীরা পাচ্ছে একাডেমিক এডভাইজর

60

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির (ইডিইউ) প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান বলেছেন, বর্তমান প্রতিযোগিতাপূর্ণ বিশ্বে ক্যারিয়ার গঠনে নানা ধরণের সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় গ্র্যাজুয়েটদের। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সঠিক গাইডলাইন না পাওয়ায় অনেকেই কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে পৌঁছাতেই পারে না। তাই শিক্ষার্থীদের একজন পথপ্রদর্শকের প্রয়োজন হয়। শিক্ষার্থীরা যাতে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনেই পরিপূর্ণ পরিচর্যা পায়, তা নিশ্চিত করতে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের জন্য রাখছে একাডেমিক এডভাইজর।
সহায়তা, পরামর্শ তথা সার্বিক গাইডলাইন দেয়ার মাধ্যমে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহযোগিতা করতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য একজন একাডেমিক এডভাইজর দেয়া হবে। তবে কোনো শিক্ষার্থী জটিল বা স্পর্শকাতর সমস্যার সম্মুখীন হলে তা সমাধানে ফ্যাকাল্টি মেম্বারদের সমন্বয়ে একটি অমবুড্জম্যান টিম গঠন করা হয়েছে বলে জানান সাঈদ আল নোমান।
রবিবার সন্ধ্যা ছয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সভায় এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
ক্লাসরুমে একজন শিক্ষকের পক্ষে অনেক সময় সকল শিক্ষার্থীর পরিচর্যা বা খোঁজ রাখা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এতে শিক্ষার্থীরা যাতে কোনো ধরণের সমস্যার সম্মুখীন না হয় বা নিজের পড়ালেখা ও ক্যারিয়ার নিয়ে দ্বিধান্বিত না হয়ে পড়ে, তা নিশ্চিত করতেই ইডিইউ এ যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষার্থীর যোগাযোগ আরো অর্থবহ হয়ে উঠবে। ফলে শিক্ষার্থীরা হীনমন্যতা কাটিয়ে নিজের পড়ালেখা ও ক্যারিয়ার সংক্রান্ত যেকোন সমস্যা শেয়ারের মাধ্যমে তা সমাধানের পথ খুঁজে পাবে।
একাডেমিক এডভাইজররা নিয়মিত তাদের অধীনস্ত শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করবেন এবং প্রতিমাসে ন্যূনতম একবার শিক্ষার্থীদের সাথে মিটিংয়ে বসবেন। এসব মিটিংয়ে শিক্ষার্থীদের সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনা করে তাদের করণীয়-বর্জনীয় সম্পর্কে জানাবেন এবং মিটিংয়ের আলোচনা ও সিদ্ধান্তগুলোর লিপিবদ্ধ করে রাখবেন। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা সেসব পালন করছে কি না এবং তদনুসারে শিক্ষার্থীর উন্নতি হচ্ছে কি না তা তদারক করবেন। শিক্ষার্থীদের ফলাফল ভালো বা খারাপ যা-ই হোক তা নজরে এনে শিক্ষার্থীকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা বা এপ্রিসিয়েশনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীকে অনুপ্রাণিত করবেন এডভাইজররা।
সভায় উপস্থিত ছিলেন প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট ডিরেক্টর শাফায়েত কবির চৌধুরী, স্কুল অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. নাজিম উদ্দিন, স্কুল অব বিজনেসের অ্যাসোসিয়েট ডিন ড. মোহাম্মদ রকিবুল কবির, কোয়ালিটি অ্যাশিওরেন্স এন্ড এক্সটার্নাল রিলেশনস ডিরেক্টার মাহমুদুর রহমান, সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট রেজিস্ট্রার ফারহানা আহমদ সিগমা, প্রভাষক তাসমিম চৌধুরী বহ্নি ও রিদওয়ান করিম। বিজ্ঞপ্তি